ঢাবির প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী

ঢাবির প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রব্বানী।  বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, আগামী ২২ অক্টোবর থেকে এ নিয়োগ কার্যকর হবে।

এর মধ্য দিয়ে ঢাবিতে দীর্ঘ ছয় বছর পর প্রক্টর পদে কাউকে নিয়োগ দেওয়া হলো। ২০১১ সালের ৩ অক্টোবর থেকে এ পদে অধ্যাপক এম আমজাদ আলী ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

গত ৪ সেপ্টেম্বর অধ্যাপক আখতারুজ্জামানকে ঢাবির ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। ওই রাতে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আমজাদ আলী ও ১০টি হলের প্রাধ্যক্ষ তৎকালীন উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন।

তবে ৮ সেপ্টেম্বর নতুন উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠক করে এসে তারা সিদ্ধান্ত বদলান। এরপর থেকে আমজাদ আলীই ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

গোলাম রব্বানী এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ও সিন্ডিকেটে সদস্য ছিলেন। এ বছরের মে মাসে সিনেটে শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থক শিক্ষকদের নীল দলের প্যানেল আরেফিনপন্থীদের নিয়ে গঠিত হয়। এরপর ওই প্যানেল চ্যালেঞ্জ করে শিক্ষক সমিতির সভাপতি এ এস এম মাকসুদ কামালের নেতৃত্বে আলাদা প্যানেল দেওয়া হয়। ওই বিদ্রোহী প্যানেলে গোলাম রব্বানীর নাম ছিল। পরে অবশ্য আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে বিদ্রোহী প্যানেলটি বাতিল হয়ে যায়।

উপাচার্য পদে আরেফিন সিদ্দিকের মেয়াদের শেষের দিকে গত ২৯ জুলাই রেজিস্ট্রার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্ধারণ না করে বিশেষ সিনেট সভা করা হয়। এতে অর্ধেকের মতো সদস্যের উপস্থিতিতে তিন সদস্যের উপাচার্য প্যানেল চূড়ান্ত করা হয়। এরপর ওই সভার ১৫ জন রেজিস্ট্রার্ড গ্র্যাজুয়েট এ বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে হাই কোর্টে যান। আদালতের রায়ে পরে ওই সিনেট সভা ও উপাচার্য প্যানেল অবৈধ ঘোষণা করা হয়। ওই রিট আবেদনকারীদের একজন অধ্যাপক একেএম গোলাম রব্বানী। তিনি এশিয়াটিক সোসাইটি অব বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক।

Source : samakal

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *